প্রত্যেক সফল ব্যক্তি যে কাজগুলো করে থাকেন!

চৌকস.jpg

চৌকস শব্দটি কি কেবল বুদ্ধিমত্তা দিয়েই নির্ধারিত হয়? না! বুদ্ধিমত্তা মানুষের ভেতরে ১৫ বছরেও যা থাকে, ৫০ বছরেও প্রায় তাই। আর তাই বুদ্ধিমত্তা ছাড়াও চৌকস হতে হলে লাগে স্থিরবুদ্ধি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষমতা, ইন্দ্রিয়ের প্রখরতা, চতুরতা, কর্মক্ষম, মানসিক প্রস্তুতিসহ আরো বেশ কিছু গুণাবলি। আর এই গুণাবলিগুলো একসঙ্গে মিলিয়ে চৌকস হতে পারলেই কেবল হতে পারা যায় একজন সফল মানুষ। কিন্তু বাস্তবে প্রত্যেকটি সফল মানুষের ক্ষেত্রেই কি উপস্থিত থাকে এই ব্যাপারগুলো? হয়তো সব সময়েই নয়। কিন্তু এটা ঠিক যে সফল মানুষদের সবার ভেতরেই থাকে কিছু সাধারণ মিল। আপনিও কি মানুষ হিসেবে সাফল্য পেতে চান? তাহলে আসুন জেনে নিন তাদের গুণগুলোকে।

১. স্বতঃস্ফূর্ত জ্ঞানকে প্রাধান্য দেয়া

সফল মানুষরা জানেন যে পৃথিবীতে যা দেখা হচ্ছে সবটাই সে রকম নয়। এ কারণে ঘটনার চেয়ে নিজেদের ইন্দ্রিয় আর স্বতঃস্ফূর্ত অনুমানের ওপরে অনেকটা নির্ভর করেন তারা। এর ওপরে ভিত্তি করেই ঠিক কখন, কি আর কার সঙ্গে কোনো বিষয়ে কথা বলতে হবে সেটা ঠিক করে নেন (বিজনেস ইনসাইডার)। সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় সব সময় যুক্তি নয়, অনুভূতির ওপরে জোর দেন সফলেরা। কারণ তারা জানেন যে এটাই ঠিক। আর এই অনুমান শক্তিটা সফলদের সবার ক্ষেত্রে উপস্থিত থাকে বলেই এতটা উপরে উঠতে পারেন তারা।

২. আত্মসচেতনতা বাড়িয়ে তোলা

সফল মানুষরা চাপাশের মানুষকে যতটা জানতে চান, তার চেয়ে বেশি জানতে চান নিজেকে। নিজের শক্তি, দুর্বলতা, বিশ্বাস, নৈতিকতা- সবটা সম্পর্কে পরিষ্কার একটা ধারণা থাকে তাদের (এন্টারপ্রেনার)। আর এ কারণেই কখনোই কোনো ভুল করেন না তারা। নিজের আবেগকে জড়িয়ে ফেলেন না কাজে। ভালো কাজ আর ভালো মানুষ হিসেবে তৈরি হওয়ার জন্য নিজেকে জানা খুবই দরকার। আর তাই নিজেকে প্রতিনিয়ত আরো ভালো করে জানার, আরো একটু উন্নত করার চেষ্টা করেন তারা।

৩. অতীতকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে চলা

সফল মানুষরা কখনোই নিজেদের অতীতে আটকে থাকতে চান না। তবে তাই বলে সেটাকে ভুলেও যান না পুরোপুরি। বরং অতীতকে জানলার ওপরে রেখে দেন তারা। যেটাকে ইচ্ছা করলেই দেখে নিয়ে নিজের আগের ভুলগুলো চিনে নেয়া যায়। এ ব্যাপারে পুরোপুরি সতর্ক থেকেই সামনের দিকে এগিয়ে যান তারা। প্রতিনিয়ত নিজের অতীতকে শুধরে নিয়ে একের পর এক নতুন কিছু নিয়ে কাজ করেন আর নতুনকে স্বাগত জানান। নতুন সম্ভাবনাকে স্বাগতম জানাতে ব্যয় করেন না একটি মিনিটও। দিনের পর দিন আরো বেশি অনুসন্ধানী হয়ে ওঠেন নতুনকে নিয়ে। (বিজনেস ইনসাইডার)

৪. প্রতিনিয়ত শিক্ষা নেয়া

মানুষ তখনই ভালো কোনো স্থানে পৌঁছতে পারে যখন তার সঙ্গে থাকে আরো অনেকের শক্তি। সফল মানুষরা নিজের কাছে সৎ থাকেন আর স্বাধীনভাবে কাজ করতে পছন্দ করেন বটে, তবে এর সঙ্গে সঙ্গে অন্যদেরও সমাদর করতে ভোলেন না। গড়ে তোলেন বিশাল এক নেটওয়ার্ক। জীবনে কষ্ট থাকবেই। সেই সঙ্গে আনন্দও। এ দুটোর মিশেলেই জীবন থেকে সবাইকে সঙ্গে নিয়ে প্রতিনিয়ত শিক্ষা নেন সফল মানুষরা। (এন্টারপ্রেনার)

৫. নিজেকে উন্নত করে তোলা

সফলদের চলার পথ কখনো শেষ হয় না। প্রতিনিয়ত নিজের ওপর শতভাগ বিশ্ব^াসকে বজায় রেখে নতুন নতুন লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যান তারা (লিউগেন ফ্যামিলি অফিস)। আর নিজের সঙ্গে সঙ্গে এগিয়ে নিয়ে যান অন্যদেরও। একলা নয়, দশজনার সঙ্গে কাজ করাটাই তাদের প্রধান ইচ্ছা। আর এই কাজের মাধ্যমেই প্রতিনিয়ত নিজের সত্যিটা আরো বেশি করে জানতে চান তারা। নিজের নেতিবাচক দিকগুলো বুঝতে চান। সেগুলো শুধরে নিয়ে হতে চান নতুন এক মানুষ। তথ্যঃ বিডি খবর

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s